অবশেষে বায়তুল মোকাররমের মুসল্লিদের রাস্তা দখলমুক্ত

অবশেষে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের পূর্ব দিকে মুসল্লিদের যাতায়াতের রাস্তা দখলমুক্ত হয়েছে। আজ বুধবার যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় মুসল্লি ও অন্যান্যদের চলাচলের উল্লেখিত রাস্তার উন্নয়নের জন্য ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কর্তৃপক্ষের কাছে রাস্তাটি অবমুক্ত করা হয়।

সভায় সিদ্ধান্ত হয় যে, এনএসসি টাওয়ার সংলগ্ন মুসল্লিদের যাতায়াতের রাস্তার ওপর পার্ক ও ড্রেন নির্মাণের লক্ষ্যে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের উদ্যোগে প্রণীত নকশাটি শিগগিরই ইসলামিক ফাউন্ডেশনের কাছে হস্তান্তর করা হবে। ইসলামিক ফাউন্ডেশন গণপূর্ত অধিদপ্তরের মাধ্যমে উক্ত নকশাটি সংশোধন করে বায়তুল মোকাররমের মুসল্লি ও সাধারণ নাগরিকদের যাতায়াতের ক্ষতিগ্রস্ত রাস্তাটি আধুনিকায়ন করবে।

যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আখতার হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় জনপ্রশশাসন মন্ত্রণালয়, ধর্ম মন্ত্রণালয়, যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের ক্রীড়া অনুবিভাগ, প্রশাসন অনুবিভাগ, জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের সচিব, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক ড. মুশফিকুর রহমানসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরের শীর্ষ পর্যায়ের কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের মুসল্লিদের যাতায়াতের তেত্রিশ বছরের পুরোনো রাস্তা দখল করে সেখানে কারো অনুমতি না নিয়েই জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ অতিসম্প্রতি পার্ক ও ড্রেন নির্মাণ কাজ শুরু করেছিল। মুসল্লিদের দীর্ঘ দিনের যাতায়াতের রাস্তার ওপর পার্ক নির্মাণের প্রতিবাদে ধর্ম প্রতিমন্ত্রী মো.ফরিদুল হক খান ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মহাপরিচালক ড.মুশফিকুর রহমান হতবাক হন। হঠাৎ মুসল্লিদের রাস্তা দখল করে পার্ক নির্মাণের প্রতিবাদে বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদ মুসল্লি কমিটি ও বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ প্রতিবাদে ফেটে পড়েন।

ধর্ম প্রতিমন্ত্রী ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের বাধার মুখে জাতীয় ক্রীড়া পরিষদ বায়তুল মোকাররমের মুসল্লিদের যাতায়াতের রাস্তার ওপর পার্ক ও ড্রেন নির্মাণ কাজ সাময়িক বন্ধ রাখে। মুসল্লিদের যাতায়াতের রাস্তার ওপর জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের একতরফা পার্ক ও ড্রেন নির্মাণের প্রতিবাদে ফুসে উঠেন জাতীয় মসজিদের মুসল্লি কমিটি এবং বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ।

গত শুক্রবার বাদ জুমা বায়তুল মোকাররম জাতীয় মসজিদের উত্তর গেইটে অনুষ্ঠিত মুসল্লি সমাবেশে জাতীয় মুসল্লি কমিটির প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান আলহাজ মিছবাহুর রহমান চৌধুরী মুসল্লিদের যাতায়াতের রাস্তাটি আগামী শুক্রবারের মধ্যে ক্রীড়া পরিষদের কাছ থেকে দখলমুক্ত এবং পুন:নির্মাণের আলটিমেটাম ঘোষণা করেন।

আজ যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সভায় উক্ত রাস্তাটির উন্নয়ন এবং সর্বপ্রকার ব্যবস্থাপনার দায়িত্ব ইসলামিক ফাউন্ডেশনের ওপর ছেড়ে দেয়ায় বাংলাদেশ ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান আলহাজ মিছবাহুর রহমান চৌধুরী এক বিবৃতিতে বায়তুল মোকাররমের রাস্তা উদ্ধার হওয়ায় সরকারকে আন্তরিক অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, মুসল্লিদের রাস্তা পুনরুদ্ধারের ঘটনায় আবারো প্রমাণিত হলো শেখ হাসিনার সরকার ইসলামী মূল্যবোধ, ইতিহাস , ঐতিহ্য রক্ষায় দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

তিনি অবিলম্বে ইসলামী নকশানুযায়ী মুসল্লিদের যাতায়াতের রাস্তার উন্নয়ন কার্যক্রম শুরু করার জোর দাবি জানান। এ ব্যাপারে ইফার ডিজি ড. মুশফিকুর রহমানের সাথে একাধিক বার যোগাযোগ করে তাকে পাওয়া যায়নি। আন্তঃমন্ত্রণালয় সভায় মুসল্লিদের যাতায়াতের রাস্তা সর্ম্পকে সিদ্ধান্ত কি হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে আজ জাতীয় ক্রীড়া উন্নয়ন বোর্ডের পরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) সরওয়ার জাহান ইনকিলাবকে বলেন, মিটিং এর রেজুলেশন প্রকাশিত না হওয়া পর্যন্ত কিছু বলা যাবে না। তিনি বলেন, কয়েক দিনের মধ্যে রাস্তা সর্ম্পকে রেজুলেশন প্রকাশিত হলেই আপনারা সব জানতে পারবেন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ

ওমরাহ পালনে মানতে হবে যেসব শর্ত

আনসারুল হক

জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া ও জেলার শীর্ষ উলামায়ে কেরামদের আহবানে 

নূর নিউজ

আফগান সেনাদের আত্মসমর্পণের মধ্য দিয়ে বিমান বন্দর দখলে নিল তালেবান

নূর নিউজ