উদাসীনতার সাথে দোয়া করা

আমরা অনেক সময় দোয়ার জন্য হাত তোলার পরও উদাসীন থাকি। বিশেষ করে জুমার দিন বিষয়টি বেশি চোখে পড়ে। মসজিদ থেকে বের হচ্ছে আর হাঁটতে হাঁটতে হাত তুলে দোয়া করছে। অর্থাৎ নিছক হাত তুলে আছে। এমনও দেখা যায় যে, হাত তুলে আছে আবার আরেকজনের সাথে গল্পও চলছে বা হাতের আঙ্গুল ফোটাচ্ছে ইত্যাদি। এ সবই উদাসীনতার সাথে দোয়া করার শামিল, যা কখনোই উচিত নয়।

হাদীস শরীফে আছে, উদাসীনতার সাথে দোয়া করলে আল্লাহ সে দোয়া কবুল করেন না। হযরত আবু হুরাইরা রা. থেকে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, দোয়া কবুল করা হবে এই বিশ্বাস নিয়ে তোমরা দোয়া কর। এবং জেনে রাখ, আল্লাহ তাআলা উদাসীন হৃদয়ের দোয়া কবুল করেন না। (দ্র. জামে তিরমিযী, হাদীস ৩৪৭৯; মুসনাদে আহমাদ, হাদীস ৬৬৫৫; মাজমাউয যাওয়ায়েদ ১০/২২২)

আমাকে দোয়ায় শরীক হতেই হবে তা তো জরুরী নয়। আমার যদি দোয়ায় শরীক হওয়ার সময় না থাকে তাহলে শরীক হব না। কিন্তু আল্লাহর সামনে হাত তুলে আমার মনোযোগ থাকবে অন্যদিকে তা কখোনোই সমীচীন নয়।

এ জাতীয় আরো সংবাদ

শান্তি ও মুক্তির একমাত্র পথ

নূর নিউজ

ঘূর্ণিঝড়ের সময় যেসব আমল করবেন

নূর নিউজ

১৪ হাজার কি.মি. পাড়ি দিয়ে ওমরায় যাচ্ছেন ২৫ বাইকার

নূর নিউজ