কাতারে ফুটবল বিশ্বকাপ দেখতে আসা ৫৫৮ দর্শক ইসলামের ছায়াতলে

নিজস্ব প্রতিবেদক, নূর নিউজ

কাতারে বিশ্বকাপ দেখতে আসা দর্শকদের মধ্যে দাওয়াতি কার্যক্রম চালাচ্ছে দেশটির ধর্ম মন্ত্রণালয়। নানাভাবে ইসলাম ধর্মের সৌন্দর্য তুলে ধরতে বিভিন্ন ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে। যার ফলে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই বিভিন্ন দেশ থেকে আসা অমুসলিমদের মধ্যে ইতিমধ্যেই ৫৫৮ জন ইসলামের সুশীতল ছায়াতলে আশ্রয় নিয়েছেন।

সারা পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্ত থেকে কাতারে ভিড় জমানো দর্শকের মাঝে ইসলামী সংস্কৃতি, মূল্যবোধ ও ইসলামের সৌন্দর্য তুলে ধরার মাধ্যমিক মানুষের কাছে ইসলামের সুমহান বাণী পৌঁছে দেয়ার এক অভিনব পদ্ধতি গ্রহণ করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বিশিষ্ট দাঈ ড. ফয়সল আল হাশেমি এক ভিডিও বার্তায় জানিয়েছেন, “বিশ্বকাপ উদ্বোধন হওয়ার পূর্বেই কাতারে গত এক সপ্তাহে ৫৫৮ জন ইসলাম গ্রহণ করেছেন। এটা মহান আল্লাহর অশেষ মেহেরবানী অতঃপর সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা ও দাওয়াতী তৎপরতার ফসল। আলহামদুলিল্লাহ।”

কাতার সরকারের পক্ষ থেকে নেয়া উদ্যোগগুলোর মধ্যে জনসম্মুখে পবিত্র কোরআনের সুমধুর তেলাওয়াত একটি। এর মাধ্যমে মহান রবের ঐশী বাণীর সুমধুর তেলাওয়াত শুনে অনেকেরই হৃদয়ে বিগলিত হচ্ছে।

কাতার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে ও উপসাগরীয় বিভিন্ন দেশ থেকে আগত ইসলামিক স্কলারদের প্রচেষ্টায় এখন পর্যন্ত যে সংখ্যক মানুষ ইসলামের ছায়াতলে এসেছে তাতে অনেকেই ধারণা করছেন এই আয়োজন শেষ হওয়ার পূর্বেই উল্লেখযোগ্য একটি অংশের কাছে ইসলামের দাওয়াত পৌঁছানোর মাধ্যমে ভালো ফলাফল পাওয়া যাবে।

এই প্রথম কোন মুসলিম প্রধান দেশে বিশ্বের সবচেয়ে জমকালো আয়োজন ফিফা ফুটবল কাপ আয়োজিত হচ্ছে। নানা জটিলতার পর লটারির মাধ্যমে স্বাগতিক দেশ হিসেবে কাতার সিলেক্টেড হয়। আর এই সুযোগকে কাজে লাগিয়ে ইসলামিক স্কলাররা সাধারণ মানুষের কাছে ইসলামের সুমহান বাণী ও মহান রবের পবিত্র বার্তা পৌঁছে দিচ্ছেন।

এ জাতীয় আরো সংবাদ

ইসরায়েলের রাজনীতি থেকে নিশ্চিহ্ন হওয়ার পথে বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু

নূর নিউজ

ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রীর বাড়িতে করোনার হানা, আইসোলেশনে নাফতালি বেনেট

নূর নিউজ

‘বাইতুল কুরআনুল করিম’ জাদুঘরে বিশ্বের সর্ববৃহৎ কাঠের কুরআন

নূর নিউজ