আমেরিকার গির্জাগুলো মুসলমানদের মিলন কেন্দ্রে পরিণত হবে: যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী মুফতি ইসমাইলের স্বপ্ন

আমেরিকার প্রথম মসজিদটি স্থাপিত হয়েছিল ১৮৯৩ সালে ইলিনইজ অঙ্গরাজ্যের শিকাগো শহরে l মসজিদটির নাম হচ্ছে আল সাদিক মসজিদ l কিছু মিসরীয় মুসলিমদের হাত ধরে মসজিদটি নির্মাণ হয়েছিল l
আমেরিকার দ্বিতীয় মসজিদটি স্থাপিত হয় প্রথম মসজিদ স্থাপনের প্রায় ত্রিশ বছর পর ১৯২১ সালে। মিশিগান অঙ্গরাজ্যের হাইল্যান্ড পার্কে l ওই মসজিদটি স্থাপন করেন আফ্রিকান বংশোদ্ভূত কিছু আমেরিকান মুসলিম পরিবার l
আমেরিকার তৃতীয় মসজিদটি স্থাপিত হয় ১৯২৯ সালে নর্থ ডাকোটায় l
সে সময়ে মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশ থেকে আসা কিছু মুসলিম পরিবার একত্রিত হয়ে মসজিদটি নির্মাণ করে। পরে অর্থকষ্টে মুসলমানরা ওই অঞ্চল ছেড়ে চলে যায়। দেখাশুনার অভাবে মসজিদটি পরিত্যক্ত হয়ে যায় l প্রায় ৭৫ বছর পর মুসলিমদের আনাগোনায় জায়গাটি আবার প্রাণচাঞ্চল্য ফিরে পায় l অবশেষে ২০০৫ সালে মসজিদটি পুনরায় নির্মাণ করা হয়।
চতুর্থ মসজিদটি নির্মাণ হয় ১৯৩৪ সালে আওয়া অঙ্গরাজ্যের Cedar Rapids শহরে l জর্ডান ও সৌদি আরবের কিছু মুসলিম পরিবার মিলে মসজিদটি নির্মাণ করেন l আমেরিকার অন্যান্য প্রচীন মসজিদ গুলো কখনো কখনো সাময়িক বন্ধ হলেও এই মসজিদটি শুরুর পর থেকে কখনোই বন্ধ হয়নি তাই এই মসজিদটিকে Mother of Mosque বলা হয় l
এই হলো মার্কিন মুল্লুকে মুসলমানদের মসজিদ নির্মানের ইতিহাস l এভাবেই শুরু হয়ে বর্তমানে এসে সমস্ত আমেরিকায় মসজিদের সংখ্যা প্রায় ২১০০ l শুরুর দিকে মসজিদ নির্মানে বাঙালীদের অবদান না থাকলেও বর্তমানে এই অবদান উল্লেখ করার মতোন l বাঙালী মুসলিমরা যেখানেই গিয়েছে সেখানেই মসজিদ বানানোর চেষ্টা করেছে এবং সফলও হয়েছে l
পরিশেষে বলতে চাই, ইসলামের সঠিক চর্চা হলে একদিন আমেরিকার গির্জাগুলো মুসলমানদের মিলন কেন্দ্রে পরিণত হবে ইনশাআল্লাহ। আল্লাহ আমাদের সে স্বপ্ন ও আশা কবুল করুর।

এ জাতীয় আরো সংবাদ

কোরআন পোড়ানোর প্রতিবাদে উত্তাল সুইডেন

আনসারুল হক

যুক্তরাষ্ট্র-চীন উত্তেজনার কারণ

আনসারুল হক

ফ্রান্সে ঈদুল আজহা উদযাপিত

আনসারুল হক