১২ দিনে দেশে ১০০ কোটি ডলার পাঠিয়েছেন প্রবাসীরা

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যেও রেমিট্যান্স পাঠানো থেমে নেই প্রবাসীদের। চলতি মাসের গত ১২ দিনে তারা দেশে ১০০ কোটি ডলার পাঠিয়েছেন। অর্থ মন্ত্রণালয় পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ সোমবার তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, বাংলাদেশের ইতিহাসে এটি একটি বিরল ঘটনা। দেশের ইতিহাসে একক মাসের মাত্র ১২ দিনে এর আগে কখনও এতো পরিমাণ রেমিট্যান্স আসেনি। চলতি ২০২০-২১ অর্থবছরে জুলাই থেকে ১২ নভেম্বর পর্যন্ত রেমিট্যান্স এসেছে ৯ দশমিক ৮৯১ বিলিয়ন ডলার। যা গত বছরের একই সময়ের তুলনায় প্রায় ৪৩ দশমিক ৪২ শতাংশ বেশি।

প্রবাসীদের প্রতি জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল। তিনি বলেছেন, করোনাভাইরাসের প্রভাবে সারাবিশ্বের অর্থনীতিই সংকটে পড়েছে। এই সময়ে আমাদের রেমিট্যান্স যোদ্ধারা কষ্ট করে অর্থ পাঠিয়ে আমাদের অর্থনীতিকে গতিশীল রাখতে চালকের ভূমিকায় অবতীর্ণ হয়েছেন। ২০১৯-২০ অর্থবছরের বাজেটে বিদেশ থেকে বৈধপথে রেমিট্যান্স পাঠালে ২ শতাংশ নগদ প্রণোদনা দেওয়া হবে বলে ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল। এর পরপরই রেমিট্যান্স পাঠানো বাড়তে শুরু করলে অনেকেই বলতে শুরু করলেন এগুলো ঠিক নয়, থাকবে না, টেকসই নয়। কিন্তু প্রণোদনা ঘোষণার পর থেকে আজ পর্যন্ত রেমিট্যান্স প্রবৃদ্ধির যে প্রবাহ, তাতে তাদের ভবিষ্যদ্বানী ভুল প্রমাণিত হয়েছে এবং আমরা যে সঠিক ছিলাম আরও একবার তা প্রমাণিত হলো গড়ে প্রতি মাসে ২ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের ওপরে প্রবাসী আয় অর্জন ইতিহাসে একটি বিরল ঘটনা।’

এ জাতীয় আরো সংবাদ

নির্বাচন দেখতে চান ২২৭ জন বিদেশি পর্যবেক্ষক ও সাংবাদিক

নূর নিউজ

আগামীতে বাংলাদেশ ও সৌদির সম্পর্ক অনন্য উচ্চতায় পৌঁছাবে

নূর নিউজ

বাংলাদেশেই যুদ্ধ বিমান তৈরি করতে চাই : প্রধানমন্ত্রী

আলাউদ্দিন